ঢাকাবুধবার , ১৩ অক্টোবর ২০২১
  1. অর্থনীতি
  2. আইন আদালত
  3. আরো
  4. কৃষি সংবাদ
  5. জাতীয়
  6. নেত্রকোণা জেলার খবর
  7. প্রধান খবর
  8. প্রযুক্তি
  9. ফিচার
  10. বিদেশ খবর
  11. বিনোদন
  12. বিভাগীয় খবর
  13. রাজনীতি
  14. রাশিফল
  15. লাইফস্টাইল

আজ মহাষ্টমী : মন্ডপে মন্ডেপে দর্শনার্থীদের ভীড়

গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি :
অক্টোবর ১৩, ২০২১ ৪:১০ অপরাহ্ণ
Link Copied!

ধর্মীয় ভাবগাম্ভিয্য ও উৎসবমুখর পরিবেশের মধ্য দিয়ে গোপালগঞ্জে অনুষ্ঠিত হচ্ছে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব শারদীয়া দূর্গাপূঁজা। প্রতিমা দেখতে জেলার বিভিন্ন মন্ডপে মন্ডপে ভীড় করছেন দর্শনার্থীরা। স্বাস্থ্যবিধি মানতে দর্শনার্থীদের স্বাস্থ্য সুরক্ষা সামগ্রী বিতরণ করছেন আয়োজকরা। মন্ডপগুলোর নিরাত্তায় নিয়োজিত রয়েছে আইনশৃংখলা রক্ষাকারী বাহিনী। আগামী ১৫ অক্টোবর বিজয়া দশমীতে বিসর্জনের মধ্য দিয়ে শেষ হবে এ শারদীয়া উৎসব।

জেলা শহরের বিভিন্ন মন্ডপে ঘুরে দেখা গেছে, প্রতি বছর মহাধূমধামে দূর্গাপূঁজা অনুষ্ঠিত হলেও গত বছর করনোর কারনে সীমিত আকারে অনুষ্ঠিত হয়েছে। তবে এবছর করোনার প্রকোপ কমে যাওয়া মহা ধূমধামের সাথেই অনুষ্ঠিত হচ্ছে এবারের দূর্গাপূঁজা। ঢাক, কাঁসর, ঘণ্টা আর শাঁখরে ধ্বনিতে মুখর হয়ে উঠেছে পূঁজামণ্ডপগুলো।

গোপালগঞ্জে ১ হাজার ২২৮টি মন্ডপে মঙ্গল প্রদীপ প্রজ্জ্বলন করে পুরোহিতের মন্ত্র পাঠের মধ্য দিয়ে মহা অষ্টমী ও সন্ধি পূজা অনুষ্ঠিত হয়েছে। পরে চন্ডী পাঠের মাধ্যমে পূণ্য লাভের আশায় দেবী দূর্গার পায়ে অঞ্জলী দেন ভক্তরা। এ সময় ভক্তরা মহামারী করোনা থেকে মুক্তি এবং দেশ ও জাতির মঙ্গল কামনা করে প্রার্থনা করেন। উলু ও শংখ ধ্বনি এবং ঢাকের বাজনায় মুখোরিত হয়ে ওঠে মন্ডপগুলো। পূজায় ফল আর বিভিন্ন উপকরন দিয়ে নৈবেদ্য সাজিয়ে দেবীকে নিবেদন করেন ভক্তরা।

এদিকে, প্রতিমা দেখতে সন্ধ্যা থেকেই জেলার বিভিন্ন মন্ডপগুলোতে ভীড় করছেন দর্শনার্থীরা। রিক্সা, ব্যাটারী চালিত ইজিবাইকসহ বিভিন্ন বাহনে পরিবার পরিজন ও বন্ধুদের সাথে নিয়ে প্রতিমা দেখছেন তারা। মহামারী করোনা থেকে মুক্তি লাভের আশায় দেবী দূর্গার কাছে প্রার্থনা করছেন দর্শনারীরা। দূর্গাপূঁজা উপলক্ষে মন্ডপসহ সড়কগুলোতে নানা রং এর বাতি দিয়ে করা হয়েছে আলোকসজ্জ্বা। প্রিয় দেব-দেবীর প্রতিমা ও চোখ ধাঁধাঁনো আলোকসজ্জাসহ নাচ-গানে মুগ্ধ দর্শনার্থীরা। তবে মন্ডপগুলোতে আসা দর্শনার্থীদের স্বাস্থ্যবিধি মানাসহ মাস্ক ও স্যানিটাইজার বিতরণ করা হচ্ছে।

দর্শনার্থী উর্মি সাহা বলেন, পরিবার পরিজন নিয়ে প্রতিমা দেখতে বের হয়েছি। শহরের বিভিন্ন মন্ডপে প্রতিমা দেখলাম। দেখে খুব ভাল লাগছে।

দর্শনার্থী বাঁধন সাহা বলেন, গত বছর করোনার কারনে প্রতিমা দেখতেয়েতে পারিনি। এ বছর করোনার প্রকোপ কমে যাওয়া পরিবারের সবাইকে নিয়ে প্রতিমা দেখতে বের হয়েছি। শহরের বিভিন্ন মন্ডপগুলো ঘুরে দেখেছি।

দর্শনার্থী সলিল বিশ্বাস বলেন, দুর্গাপূঁজা উপলক্ষে বিভিন্ন মন্ডপ ও সড়কগুলোতে আলোকসজ্জ্বা করা হয়েছে। পরিবার ও বন্ধুদের নিয়ে ঘুরলাম ও প্রতিমা দেখলাম।

জেলা শহরের বাজার যুব সংঘের আয়োজক জয়দেব সাহা বলেন, প্রতিমা দেখেতে আসা দর্শনার্থীদের জন্য বিভিন্ন আয়োজন করা হয়েছে। মন্দির ও সড়কগুলোতে আলোকসজ্জ্বা করা হয়েছে। যাতে দর্শনার্থীরা নির্বঘ্নে প্রতিমা দেখতে পারেন।

গোপালগঞ্জ কেন্দ্রীয় কালীবাড়ী কমিটির সাধারন সম্পাদক বিভূতি ভূষন রায় বলেন, সরকারী ও পূঁজা উদযাপন পরিষদের নির্দেশনা মেনে পূঁজার সকল আনুষ্ঠিকতা পালন করা হচ্ছে। দূরদূরান্ত থেকে আসা দর্শনার্থীদের মাঝে মাস্ক ও স্যানিটাইজার দেয়া হচ্ছে। সবধরনের স্বাস্থ্যবিধি মানা হচ্ছে।

জেলা প্রশাসক শাহিদা সুলতানা বলেন, দূর্গাপূঁজা শান্তিপূর্ণভাবে পূজামন্ডপগুলোর আয়োজক কমিটির সদস্যদের বিভিন্ন দিক নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। করোনার প্রকোপ কমে গেলেও মন্ডপগুলোতে স্বাস্থ্যবিধি মানার জন্য নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। এ পূঁজা শেষ করতে মন্ডপ কমিটির নিজস্ব নিরাপত্তাসহ নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রট ও আইনশৃংখলা রক্ষাকারী বাহিনী নিয়োজিত রয়েছে।

আরো পড়ুনঃ ট্রেনে কাটা পড়ে নির্মাণ কাজের সিকিউরিটি নিহত

বাদল/জনপ্রিয়

x