G-P4YRF2NDHL G-P4YRF2NDHL
Thursday, June 13, 2024
Google search engine
Home Blog Page 3

আটপাড়ায় বাংলা নববর্ষ উপলক্ষে মঙ্গল শোভাযাত্রা

0
আটপাড়ায় বাংলা নববর্ষ উপলক্ষে মঙ্গল শোভাযাত্রা

নেত্রকোনার আটপাড়ায় বাংলা নববর্ষ উদযাপন-১৪৩১ উপলক্ষে মঙ্গল শোভাযাত্রা অনুষ্ঠিত হয়েছে। দিবসটি উপলক্ষে রবিবার (১৪ এপ্রিল) সকাল ৯ ঘটিকায় একটি মঙ্গল শোভাযাত্রা বের হয়।

উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে পরিষদের সামনে থেকে বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা বের হয়ে শহরের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে একই স্থানে গিয়ে শেষ হয়।

এ সময় মঙ্গল শোভাযাত্রায় উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এম. সাজ্জাদুল হাসান, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান খান নন্দন, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান তানিয়া নাজনীন চৌধুরী রেখা, উপজেলা প্রকৌশলী আল মুতাসিম বিল্লাহ, উপজেলা যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা ওমর ফারুক, থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোহাম্মদ তাওহীদুর রহমান, দুওজ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সাইদুল হক তালুকদার, তেলিগাতী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান অখিল চন্দ্র দাস , বাউসা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক এমদাদুল হক, দৈনিক আজকের পত্রিকার আটপাড়া উপজেলা প্রতিনিধি ফয়সাল চৌধুরী প্রমুখ।

আরো পড়ুন : কলমাকান্দায় সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত তিন

কলমাকান্দায় ঈদের নামাজ শেষে মোটরসাইকেলে ঘুরতে গিয়ে প্রাণ গেল তিন যুবকের

0

নেত্রকোনার কলমাকান্দায় ঈদে মোটরসাইকেলে ঘুরতে গিয়ে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে তিনজনের মৃত্যু হয়েছে। বৃহস্পতিবার (১১ এপ্রিল) বিকেলে সীমান্ত সড়কের লেংগুড়া ইউনিয়নের চেংগ্নী বাজার সংলগ্নচেংগ্নী বাজার সংলগ্ন এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন, উপজেলার নাজিরপুর ইউনিয়নের কয়ড়া গ্রামের কবির মিয়ার ছেলে হৃদয় মিয়া (২৪), আমতলা গ্রামের মো. জয়নাল মিয়ার ছেলে হালিম মিয়া (২২), হাটশিরা শিবনগর গ্রামের মজিবুর মিয়ার ছেলে নবী হোসেন (৩৫)।

স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, বৃহস্পতিবার ঈদের নামাজ শেষে ওই তিন যুবক মোটরসাইকেলে করে কলমাকান্দা ও দুর্গাপুর উপজেলার সীমান্ত সড়কে ঘুরতে যান। বিকেল তিনটার দিকে কলমাকান্দার রংছাতি ইউনিয়নের পাতলা বন এলাকায় পাহাড় দেখে ফেরার পথে চেংগ্নী বাজার এলাকায় সড়কের বাক ঘুড়তে গিয়ে চালক মোটরসাইকেলটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফেলে। এতে মোটরসাইকেল নিয়ে তিনজনই সড়কের নিচে পড়ে যান। পড়ে স্থানীয় লোকজন তাদের উদ্ধার করে দুর্গাপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তিনজনকে মৃত ঘোষণা করেন।

কলমাকান্দা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ লুৎফুল হক ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, ঘটনাস্থল পরিদর্শনসহ তিন জনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। নিহতের স্বজনরা ময়নাতদন্ত ছাড়া মরদেহ নিয়ে যেতে আবেদন জানিয়েছেন। ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সঙ্গে পরামর্শ করে এ ব্যাপারে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

আরো পড়ুন : মোহনগঞ্জে চাঁদাবাজি : থানায় মামলামোহনগঞ্জে চাঁদাবাজি : থানায় মামলা

মোহনগঞ্জে যাত্রীবাহী গাড়ি আটকে চাঁদাবাজি : ৫ জনের বিরুদ্ধে মামলা

0

ঢাকাসহ বিভিন্ন এলাকা থেকে মোহনগঞ্জে ঈদে বাড়ি ফেরা যাত্রীবাহী গাড়ি আটকে চাঁদাবাজির ঘটনায় পাঁচজনের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে।

এদিন প্রতিবাদ চাঁদাবাজদের হামলায় দুই যাত্রীও জখম হয়। পরে তাদের উদ্ধার করা হয় হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসাপ্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয় । তবে মামলার পরপরই গা ঢাকা দিয়েছে অভিযুক্তরা।

বুধবার মোহনগঞ্জ থানার উপপরিদর্শক (এসআই) তাজুল ইসলাম এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। এরআগে মঙ্গলবার সকালে উপজেলার সামাইকোনা এলাকায় কংশ নদের সেতুর ঢালে এ চাঁদাবাজির ঘটনা ঘটে। ওই ব্রিজ নেত্রকোনার মোহনগঞ্জ ও সুনামগঞ্জের ধর্মপাশাকে সংযুক্ত করেছে।

মামলার আসামি হলেন, মোহনগঞ্জ উপজেলার কলুংকা গ্রামের মো. সাইকুল ইসলাম (২২), একই গ্রামের মামিন মিয়া (২১), মো. বিজয় মিয়া (২০), মো. রফিক মিয়া (২২) ও মো. রাসেল মিয়া (২২)। এছাড়া মামলায় আরও ৪-৫ জনকে অজ্ঞাত আসামি করা হয়।

এদিকে ভুক্তভোগী গাড়ি চালক তোফায়েল আহম্মেদ পরাণের বাড়ি বারহাট্টা উপজেলার ভাবনীকোনা গ্রামে।

মামলার অভিযোগ, পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, ঈদ উপলক্ষে পরাণ তার ব্যক্তিগত পিকআপে করে যাত্রী পরিবহন করছিলেন। মঙ্গলবার সকালে ঢাকা থেকে যাত্রী নিয়ে ধর্মপাশার উদ্দেশ্য রওনা হন। পথে নেত্রকোনার মোহনগঞ্জের সামাইকোনা সেতুর ওপর পৌছলে ৮-১২ যুবক গাড়ি থামায়। তারা ১০০ টাকা চাঁদা দাবি করেন।চাঁদা দিতে অস্বীকৃতি জানালে চালকের আসনে থাকা পরাণকে গাড়ি থেকে টেনেহিঁচড়ে বের করে মারধর করে তারা। এ সময় যাত্রীরা প্রতিবাদ করলে তাদের ওপর হামলা চালায় ওই চাঁদাবাজরা। এতে দুই যাত্রী জখম হন।

আহতরা হলেন, উপজেলার বারঘর নোয়াগাঁও গ্রামের মো. পবিন মিয়া (২৫) ও সুনামগঞ্জের জামালগঞ্জ উপজেলার লক্ষ্মীপুর গ্রামের মো. রিয়াজিবুর রহমান (৩৩)। পরে তাদের উদ্ধার করে মোহনগঞ্জ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। এদিকে ৯৯৯ এ কল করে পুলিশের সহায়তা চাইলে ধর্মপাশা থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে ছুটে যায়। এসময় হামলাকারীরা পালিয়ে যায়। পরে এ ঘটনায় মঙ্গলবার রাতে পিকআপ চালক পরাণ বাদী হয়ে থানায় অভিযোগ করলে আজ বুধবার ১০ এপ্রিল বিভিন্ন ধারায় মামলা দায়ের করেছেন।

ভুক্তভোগী পিকআপ চালক তোফায়েল আহম্মেদ পরাণ জানান, ঢাকা থেকে যাত্রী নিয়ে মঙ্গলবার সকালে মোহনগঞ্জের সামাই সেতুর ওপর উঠতেই ১০-১২ জন যুবক গাড়ি থামায়। তারা আগে থেকেই এই সড়কে ঢাকা থেকে যাত্রী নিয়ে আসা গাড়ি আটকে চাঁদা তুলছিল। তারা ১০০ টাকা চাঁদা চাইলে আমি টাকা দিতে অস্বীকৃতি জানাই। কিসের টাকা জানতে চাইলে তারা ক্ষিপ্ত হয়ে অশালীন ভাষায় গালাগাল শুরু করে। এক পর্যায়ে চালকের আসান থেকে টেনে বের করে আমাকে মারধর করে। এতে যাত্রীরা প্রতিবাদ করলে তাদের ওপর হামলা চালায় চাঁদাবাজরা। হামলায় ছুরির আঘাতে দুই যাত্রীর মাথা কেট জখম হয়। এ ঘটনায় থানায় অভিযোগ করা হয়েছে।

মোহনগঞ্জ থানার উপপরিদর্শক (এসআই) তাজুল ইসলাম বলেন, ঘটনার পরপরই চাঁদাবাজদের বাড়িতে গিয়ে আসামি আটকের চেষ্টা করেছি । অভিযুক্তরা গা ঢাকা দিয়েছে। তবে আসামিদেরকে গ্রেপ্তারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

আরো পড়ুন : দুদিনব্যাপী লোকসংগীত অনুষ্ঠিত দুদিনব্যাপী লোকসংগীত অনুষ্ঠিত 

নেত্রকোনায় দুদিনব্যাপী লোকসঙ্গীত উৎসব শুরু শুক্রবার

0
নেত্রকোনায় দুদিনব্যাপী লোকসঙ্গীত উৎসব শুরু শুক্রবার

নেত্রকোনা শহরের কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে শুক্রবার (১ মার্চ) বিকাল থেকে দুদিনব্যাপী লোকসঙ্গীত উৎসব শুরু হচ্ছে। বাংলাদেশ উদীচী শিল্পী গোষ্ঠীর নেত্রকোনা জেলা সংসদ এ উৎসবের আয়োজন করেছে।

এবারের উৎসবের প্রতিপাদ্য বিষয় হচ্ছে বাউল রশিদ উদ্দিনের গানের বাণী ‘ইতর ভদ্র মেথর মুচি, প্রভুর কাছে সবি শুচি’।

শুক্রবার বিকাল পাঁচটায় উৎসব উদ্বোধন করবেন, উদীচীর কেন্দ্রীয় সংসদের সহ-সভাপতি ও একুশে পদকপ্রাপ্ত সংস্কৃতিজন বীর মুক্তিযোদ্ধা মাহমুদ সেলিম।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে যোগ দেবেন সাবেক সমাজকল্যাণ প্রতিমন্ত্রী বীর মুক্তিযোদ্ধা আশরাফ আলী খান খসরু এমপি।

এছাড়াও অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন জেলা প্রশাসক শাহেদ পারভেজ এবং জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শামছুর রহমান লিটন।

প্রথম দিনের অনুষ্ঠানসূচিতে রয়েছে, উদীচীর কলাকুশলীদের পরিবেশনায় লোকসঙ্গীত, লোকনৃত্য, পালাগান ও ধামাইলগান, বাউল আবুল বাশার তালুকদার, উমেদ আলী, ফকির চান, আলেয়া সরকার, রুবি সরকার ও মরিয়ম সরকারের পরিবেশনায় বাউলগান এবং বাউল সিরাজ উদ্দিন খান পাঠান ও অলিদ মিয়ার পরিবেশনায় মালজোড়া গান।

দ্বিতীয় দিন শনিবার বিকাল পাঁচটা থেকে অনুষ্ঠিত হবে আলোচনা সভা, উদীচীর শিল্পীদের পরিবেশনায় লোকসঙ্গীত ও লোকনৃত্য, সবুজ বয়াতী ও তার দলের পরিবেশনায় কিচ্ছাপালা এবং জ্ঞানদীপ থিয়েটারের পরিবেশনায় যাত্রাপালা (নিচু তলার মানুষ)। উৎসব উদযাপন কমিটির সদস্যসচিব ও লোকসংস্কৃতি গবেষক সঞ্জয় সরকার জানান, নতুন প্রজন্মকে বাঙালির আবহমান লোকসাংস্কৃতিক ঐতিহ্যের সঙ্গে পরিচয় করিয়ে দিতেই উদীচীর এ প্রয়াস।

আরো পড়ুন : থাকছে না রাশেদ জুয়েলের নেতৃত্ব : আসছে ছাত্রদলের নতুন কমিটি

থাকছে না রাশেদ জুয়েলের নেতৃত্ব : আসছে ছাত্রদলে নতুন কমিটি!

0
থাকছে না রাশেদ জুয়েলের নেতৃত্ব : আসছে ছাত্রদলে নতুন কমিটি!

বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দলের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গসংগঠন হলো ছাত্রদল। চূড়ান্ত আন্দোলন সময়ে বিএনপির ভ্যানগার্ড-খ্যাত ছাত্রদলের নেতৃত্বে দুর্বলতা প্রকাশ পেয়েছে। দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের সময়ও সফল হয়নি বিএনপির এক দফার আন্দোলন।

অতীতে স্বৈরাচার এরশাদের পতনসহ গুরুত্বপূর্ণ আন্দোলনে ছাত্রদল সংগঠনটি অন্যতম শক্তি হিসেবে থাকলেও সরকার পতনে কিংবা খালেদা জিয়ার মুক্তির আন্দোলনে কোনো ভূমিকাই দেখাতে পারেনি।

দলটির সিনিয়র নেতারা বলছেন, বর্তমান কমিটিতে সিন্ডিকেট, আঞ্চলিকতা গুরুত্ব পাওয়ায় আন্দোলনের উপযুক্ত সময়ে যোগ্য নেতারা ভূমিকা দেখাতে পারেনি।

তবে ২৮ অক্টোবরের আগে পরে মাত্র কয়েকজনকে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে বিচ্ছিন্নভাবে কেন্দ্রীয় কর্মসূচি বাস্তবায়নে রাজপথে দেখা গেছে। জ্যেষ্ঠ নেতাদের ভাষ্য, ছাত্রদলের অতীত গৌরব এখন অনেকটাই ম্লান। সারা দেশে ছাত্রদলের জেলার মর্যাদাসম্পন্ন শাখার সংখ্যা ১১৮টি। এর প্রায় অর্ধেক কমিটিই মেয়াদোত্তীর্ণ।

কমিটি থাকলেও ছাত্ররাজনীতির প্রাণকেন্দ্র ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে অনেকটা অস্তিত্ব সংকটে। বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রদলের অবস্থান এখন অনেকটাই আড়ালে চলে গেছে। নেতৃত্বের সেতুপথ অনেকটাই রুদ্ধ। যোগ্যতাকে অগ্রাধিকার না দিয়ে ভাই গ্রুপ ও আঞ্চলিকতাকে অগ্রাধিকার দেয়ায় এমন পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে বলেও মনে করেন অনেকেই।

বিএনপির গুরুত্বপূর্ণ পদে থাকা ছাত্রদলের সাবেক একজন সভাপতি বলেন, ছাত্রদলের বর্তমানে ৩৯০ সদস্যের কেন্দ্রীয় কমিটি রয়েছে। তারা যদি এক সঙ্গে রাজপথে নামতেন তাহলে অবশ্যই আন্দোলনে বড় আলোড়ন সৃষ্টি হতো। খালেদা জিয়ার মুক্তি থেকে সরকার পতন কর্মসূচিতে সেই ভূমিকা দেখা যায়নি। যার মূল কারণ ছাত্রদলের অযোগ্যতা। কমিটি হয়েছে ভাই ও আঞ্চলিকতার। তাই এখনি সময় আগামীর সতর্কতার।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়-২০২২ সালের ১৭ এপ্রিল কাজী রওনকুল ইসলাম শ্রাবণকে সভাপতি ও সাইফ মাহমুদ জুয়েলকে সাধারণ সম্পাদক করে ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় কমিটির পাঁচ নেতার নাম ঘোষণা করা হয়। একই বছরের ১১ সেপ্টেম্বরে ৩০২ সদস্যের পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা করা হয়।

২০২৩ সালের ৮ আগস্ট আন্দোলনে নিষ্ক্রিয়তার অভিযোগে শ্রাবণকে সরিয়ে রাশেদ ইকবাল খানকে ভারপ্রাপ্ত সভাপতি করা হয়। তবে যে অভিযোগে শ্রাবণকে সরিয়ে দেয়া হয় আন্দোলন সময়ে অনেকটা তা মিথ্যা প্রমাণিত হয়েছে।

২৮ অক্টোবরের পর বিএনপি, ছাত্রদল ও যুবদলের শীর্ষ নেতারা যখন আত্মগোপনে চলে যায় তখন শ্রাবণকে দেখা যায় ঢাকার গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্টগুলোতে আন্দোলনের ভূমিকাতে। যেই ভূমিকা ছাত্রদলের শীর্ষ পদের নেতাদের দেখা যায়নি। নেতৃত্বের দুর্বলতা বাধাগুলো কাটিয়ে উঠতে সাংগঠনিক ফোরামে বিষয়গুলো নিয়ে আলোচনে চলছে।

রাজপথের ভূমিকা ও ত্যাগীদের মধ্যে আলোচিত সাংগঠনিক দক্ষতা, দলের জন্য ত্যাগ এবং ২৮ অক্টোবরের আগে পরে রাজনৈতিক ভূমিকার উপযুক্ত সময়ে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে যারা রাজপথের অগ্রভাগে ছিলেন। তাদের মধ্যে উল্লেখযোগ্য কয়েকজনের নাম জানিয়েছেন দলটির মাঠপর্যায়ের নেতাকর্মীরা। তাঁরা হলেন..

সহ-সভাপতি : তানজিল হাসান, মো: ঝলক মিয়া, মুতাসিম বিল্লাহ, নাসির উদ্দীন নাসির, মাহবুব মিয়া, নিজাম উদ্দিন রিপন, আকতার হোসেন, মারুফ এলাহী রনি, সিনিয়র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক : রাকিবুল ইসলাম রাকিব, সাংগঠনিক সম্পাদক : আবু আফসান ইয়াহইয়া, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক : জহির রায়হান, আবু জাফর, সোহেল রানা, আবু সুফিয়ান, মশিউর মামুন, সাফি ইসলাম, মঞ্জুরুল রিয়াদ, আমানুল্লাহ আমান, তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক : জি এম ফখরুল হাসান, সহ-সাধারন সম্পাদক : কবির হোসেন ফকিরসহ অনেকেই।

জনপ্রিয়/এসএইচ

পরীক্ষার্থীকে মারধর করে প্রবেশপত্র ছিনতাই : গ্রেপ্তার ৩

0
মোহনগঞ্জে পরীক্ষার্থীকে মারধর করে প্রবেশপত্র ছিনতাই : গ্রেপ্তার ৩

নেত্রকোনার মোহনগঞ্জ উপজেলায় চলমান এসএসসি পরীক্ষার্থীকে মারধরের পর তার প্রবেশপত্র ছিনিয়ে নেয়ার ঘটনা ঘটেছে।

এ ঘটনায় থানায় মামলা দায়েরের পর তিন অভিযুক্তকে গ্রেফতার করেছে থানা পুলিশ।

গত রবিবার মোহনগঞ্জ আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে এ ঘটনাটি ঘটেছে। ভুক্তভোগী শিক্ষার্থীর নাম মো. সামিউল (১৬)। সে উপজেলার কমলপুর গ্রামের মো. সাইকুল মিয়ার ছেলে। পরে ওইদিন বিকেলে তিনজনকে আসামী করে থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করে সামিউল।

পুলিশ সোমবার রাতে উপজেলার কমলপুর গ্রাম থেকে শান্ত মিয়ার ছেলে অনু মিয়া (৩০), সুজন মিয়া (২৫) ও অনু মিয়ার চাচাতো ভাই রাজু মিয়াকে (২২) আটক করে। তারা ওই গ্রামের বাসিন্দা।

অভিযোগে জানা যায়, গত রবিবার পরীক্ষার্থী সামিউল মোহনগঞ্জ আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে এসএসসি পরীক্ষা দিয়ে বের হয়। মায়ের সাথে বাড়ির দিকে যাওযার সময় টেংগাপাড়া এলাকায় কলেজ রোডে সামিউলের উপর ছুরি নিয়ে হামলা চালিয়ে মারধর করে স্থানীয় অনু মিয়া ও তার চাচাতো ভাই রাজু। এক পর্যায়ে প্রবেশপত্র কেড়ে নেয়। পরে কেন্দ্রে থাকা পুলিশ সদস্যরা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

মোহনগঞ্জ থানার ওসি মো. দেলোয়ার হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, পরীক্ষার্থীকে মারধরের ঘটনায় মামলা দায়েরের পর সোমবার রাতে তিনজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। মঙ্গলবার দুপুরে তাদের আদালতে পাঠানো হয়েছে।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোসা. হাফিজা জেসমিন বলেন, ঘটনার পর নিরাপদে সামিউলের পরীক্ষার ব্যবস্থা করতে কেন্দ্র সচিবকে বলা হয়েছে। এখন সে নিয়মিত পরীক্ষা দিচ্ছে।

আরো পড়ুন : একই স্থানে ওরশ ও ওয়াজ : প্রশাসনের নির্দেশে বন্ধ

একই স্থানে ওরশ ও ওয়াজ কর্মসূচি : প্রশাসনের নির্দেশে বন্ধ

0
একই স্থানে ওরশ ও ওয়াজ কর্মসূচি : প্রশাসনের নির্দেশে বন্ধ

নেত্রকোনার মোহনগঞ্জ পৌর শহরের ‘পাংখা মামা’র মাজারে আলেম-ওলামাদের ওয়াজ মাহফিল ডাকায় ওরশ অনুষ্ঠান বন্ধ হয়ে গেছে।

সোমবার সন্ধ্যা থেকে ওই মাজারে ওরশ শুরু হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু স্থানীয় অলেম-ওলামারা মাজারে ওরশের পরিবর্তে ওয়াজ মাহফিল করার ঘোষণা দেন।

তবে এনিয়ে রোববার থেকে উভয় পক্ষ মুখোমুখি অবস্থান নিলে অনাকঙ্খিত পরিস্থিতি এড়াতে প্রশাসন ওরশ বন্ধ রাখতে বলেন। এদিকে অন্য পক্ষকে ওয়াজ মাহফিল না করে শান্ত থাকতে বলা হয়।

গত ১৯ বছর যাবত ওরশ অনুষ্ঠান হয়ে আসছে ‘পাংখা মামা’র মাজারে। আশপাশের নানা জায়গা থেকে প্রতিবছর ওরশে হাজার হাজার মানুষ উপস্থিত হয়।

তবে প্রতিবছরের মতো এবারও নির্বিঘ্নে ওরশ পালনে জেলা প্রশাসকের কাছে লিখিত আবেদন করেছেন মাজারের ওরশ আয়োজন কর্তৃপক্ষ। পাশাপাশি বিষয়টি উপজেলা প্রশাসনকওে অবহিত করেছেন তারা।

এদিকে উপজেলার বেশ কয়েকজন আলেম-ওলামা মাজারে ওরশ বন্ধ রাখার জন্য উপজেলা প্রশাসনের কাছে আবেদন জানিয়েছেন। ওরশের জায়গায় ওয়াজ মাহফিল করারও দাবি জানিয়েছেন তারা।

আলেম-ওলামাদের দাবি- মাজারে কবরস্থান রয়েছে। সেখানে ওরশের নামে গান-বাজনা করা হয়। সেইসাথে ওরশ চলাকালে মদ-গাঁজার আসর বসে। ইসলামের দৃষ্টিতে এসব গোনাহের কাজ। তাই তারা ওরশ বন্ধ রাখার দাবি জানান তারা।

উভয় পক্ষের পাল্টাপাল্টিতে পরিস্থিতি শান্ত রাখতে উপজেলা প্রশাসন আপাতত ওরশ বন্ধ রেখেছে।

এ বিষয়ে ওরশ আয়োজন কমিটির সভাপতি রফিকুল ইসলাম বলেন, গত ১৯ বছর ধরে এখানে ওরশ পালন হয়ে আসছে। এখানে মিলাদ- দোয়ার পাশাপাশি সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান হয়ে থাকে। বিভিন্ন জেলা থেকে হাজার হাজার মানুষ ওরশে আসেন। বেআইনি কিছু এখানে হয় না। এমনকি ইসলাম বিরোধী কোন কার্যকলাপও এখানে হয় না। আমাদের মাজার কমিটির একজন মাজারের টাকা পয়সা এদিক ওদিক করে ফেলে। পরেতাকে হিসেব দিতে বলায় ষড়যন্ত্র করে হুজুরদের সাথে হাত মিলিয়ে এখন ওরশ বন্ধ করে দিতে চাইছে। না হলে গত ১৯ বছর ওই আলেমরা তো এই শহরের ছিলেন। তখন তো বাধা দিলেন না।

তিনি আরও বলেন, উপজেলায় আরও অনেক মাজার আছে। প্রত্যেকটাতে ওরশ হয়। সেগুলোতে তো আলেমরা ওরশ বন্ধ করেন না। ওরশ বন্ধ হলে সব মাজারে বন্ধ করা হোক। তবে তাদের কমিটির ওই সদস্যর নাম বলতে চাননি তিনি।

উপজেলার আলেম-ওলামাদের একজন পাংখা মামার মাজারে ওরশ বন্ধের বিষয়ে সক্রিয় মাওলানা মাসুম আহমদ বলেন, ওই মাজারে কবরস্থান রয়েছে। কবরস্থান পবিত্র স্থান হিসেবে গণ্য। তাই ওখানে গান-বাজনা করা গোনাহের কাজ। ওরশে মদ-গাঁজার আসর বাসে। তাই এসব কাজ বন্ধে আমারা উপজেলার আলেম-ওলামারা মিলে উপজেলা প্রশাসনকে বলেছি। ওরশের পরিবর্তে সেখানে ওয়াজ মাহফিল করার ঘোষণা দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু প্রশাসন ওরশ বন্ধ রেখেছে, পরিস্থিতি বিবেচনায় আমরা ওয়াজ মাহফিল বন্ধ রেখেছি। যদি ওরশ শুরু করা হয় তাহলে সেটি বন্ধ করে আমরা সেখানে ওয়াজ মাহফিল করব। তাদেরকে ইসলাম বিরোধী কাজ করতে দেওয়া হবে না। এ সিদ্ধান্ত আমাদের সবার।

উপজেলার অন্যান্য মাজারের ওরশ বন্ধ করা হবে কিনা, নাকি শুধুমাত্র পাংখা মামার মাজারে বিষয়ে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এমন প্রশ্নের জবাবে মাওলানা মাসুম আহমদ বলেন, অন্যান্য মাজারের ওরশ বন্ধ করা হবে কিনা জানি না। এ বিষয়ে আমাদের কোন সিদ্ধান্ত হয়নি।

এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মোসা. হাফিজা জেসমিন বলেন, ওরশ আয়োজনের জন্য মাজার কর্তৃপক্ষ রোববার জেলা প্রশাসকের (ডিসি) কাছে আবেদন করেছেন। এখনো কোন সিদ্ধান্ত আসেনি। তাই আজ ওরশ বন্ধ রাখতে বলা হয়েছে। মঙ্গলবার হয়তো কোন একটা জবাব পাওয়া যাবে। ডিসি স্যার যে সিদ্ধান্ত দেবেন সেই অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

আরো পড়ুন : নেত্রকোনায় গণপূর্ত কর্মকর্তার ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার

হারানো বিজ্ঞপ্তি

0
হারানো বিজ্ঞপ্তি

একটি হারানো বিজ্ঞপ্তি। মো: মানিক মিয়া, বয়স ৪৩ বছর। তিনি প্রায় দুই মাস আগে বাড়ি থেকে কোথায় যেন হারিয়ে গেছে।

তিনি নেত্রকোনা জেলার মদন উপজেলার কাইটাইল ইউনিয়নের জাওলা গ্রামের বাসিন্দা। সে বাড়ি থেকে বেরিয়ে আর ফেরেনি।

মানিক মিয়া মানসিকভাবে অসুস্থ। তার গায়ের রং শ্যামলা, পড়নে ছিল গেঞ্জি শীতের চাদর ও লুঙ্গি।

তার বোন জানান, মানসিকভাবে অসুস্থ মানিক মিয়া গত ২০২৩ সালে ৫ ডিসেম্বর গ্রামের বাড়ি থেকে বেরিয়ে আর বাসায় ফেরেনি। তাকে অনেক খোঁজাখুঁজি করেও কোথায় পাওয়া যায়নি।

যদি কোন স্ব-হৃদয়বান ব্যক্তি তার সন্ধান পান তাহলে তার ভাই সবুজ মিয়া (মোবাইল নং-01739-071203 ও 01933-456649) ও তার বোনের (মোবাইল-01744-831106) সাথে যোগাযোগ করার জন্য অনুরোধ করা গেল।

আরো পড়ুন: নেত্রকোনায় গণপুর্ত কর্মকর্তার ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার

আলো দেখাচ্ছে ‘প্রিয় শিক্ষালয়’ অ্যাপ

0
আলো দেখাচ্ছে ‘প্রিয় শিক্ষালয়’ অ্যাপ

একেকটি দিন যাচ্ছে, সেই সাথে বদলে যাচ্ছে মানুষের নিত্যদিনের কর্মকান্ডও। ক্রমান্বয়ে মানুষ হয়ে পড়ছে প্রযুক্তি নির্ভর। সকল প্রকার কার্যক্রমের পাশাপাশি লেখাপড়াও হয়ে পড়ছে প্রযুক্তিভিত্তিক। সাধারণ মানুষের ধারণা, শিক্ষা বিস্তারের একমাত্র দায়বদ্ধতা বই-পুস্তকের আর মোবাইল নাকি শুধু বিনোদন ছাড়া কিছুই না। কিন্তু সেই ধারণা পাল্টে দিয়েছে মোবাইলভিত্তিক অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ ‘প্রিয় শিক্ষালয়’। চাকুরী প্রত্যাশীদের আলো দেখাচ্ছে এই অ্যাপটি।

জবস্ প্রিপারেশন এন্ড লার্নিং এ অ্যাপটি যাত্রা শুরুর মাত্র দশ মাসের মাথায় ৫০হাজার ইউজার ডাউনলোডের মাইলফলক স্পর্শ করেছে। অ্যাপটির মাধ্যমে অনেক বেকার শিক্ষার্থী দেখেছেন আশার আলো। ইতোমধ্যে এই অ্যাপের কল্যাণে পেয়েছেন চাকুরীর সুযোগও।

গেল বছরের ২১শে ফেব্রুয়ারীতে আনুষ্ঠানিকভাবে গুগল প্লে-স্টোরে উমুক্ত হওয়ার পর ইতোমধ্যে ৫০ হাজারের বেশি বার প্লে-স্টোর থেকে এই অ্যাপ ডাউনলোড হয়েছে।

জানা গেছে, বেকার বান্ধব সাবস্ক্রিপশন প্রাইস প্ল্যানিং, ইউজার-ফ্রেন্ডলি ইন্টারফেস, বিষয়ভিত্তিক ও পরীক্ষা ভিত্তিক মডেল টেস্ট, প্রতিদিনের পড়াশোনাকে বিভাজন করে আকর্ষনীয় কোর্স প্ল্যান, বিগত ২০ বছরে আসা বিভিন্ন পরীক্ষার প্রশ্নের আর্কাইভ “প্রশ্ন ব্যাংক”, দেশের নামকরা মেন্টরদের তত্বাবধানে করা “লেকচার শীট”, খেলতে খেলতে চাকরির প্রস্তুতি নেয়ার ফিচার “কুইজ খেলুন”, নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি এলার্ট বেসইড ফিচার “জবস্ সার্কুলার”, সাম্প্রতিক বিষয়াবলীর আপডেট নিয়ে ফিচার “কারেন্ট অ্যাফিয়্যার্স” সহ চাকরি প্রার্থীদের নানা প্রয়োজনীয় ফিচার যুক্ত থাকায় অ্যান্ড্রয়েড এ অ্যাপটি এতো দ্রুত ইউজারদের সাড়া পায়।

রাষ্ট্রবিজ্ঞানে পড়ুয়া শিক্ষার্থী প্রিয়াংকা বলেন, এক্সাম হিস্টোরিসহ আরো কিছু ফিচার যুক্ত করা প্রয়োজন এই অ্যাপে। যদিও অ্যাপটি নতুন, তারা হয়ত সেই ফিচারটিও যুক্ত করবে বলে মনে হচ্ছে । প্রতিনিয়তই তাদের কিছু না কিছু আপডেট লক্ষ্য করছি । সেই ধারাবাহিকতা রক্ষা করে গেলে অনেক ভাল কিছু হবে অ্যাপটি নিঃসন্দেহে বলতে পারি।

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের অনার্স শেষ বর্ষে পড়ুয়া শিক্ষার্থী মুজাহিদ বিল্লাহ জানান, প্রিয় শিক্ষালয় অ্যাপটির কথা প্রথম জানতে পারি এক বন্ধুর মাধ্যমে। তার কথাতে গুগল প্লে- স্টোরে Priyoshikkhaloy লিখে সার্চ দিলে অ্যাপটি চলে আসে এবং তা ডাউনলোড করে নেয়। তারপর থেকে নিয়মিত এক্সাম দিচ্ছি তাদের প্লাটফর্মে । অ্যাপটি নতুন হলেও অনেক সাজানো গোছানো এবং নিয়মিত আপডেট তথ্য পায়।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে মাস্টার্স করছেন সাবিহা দিপ্তি মিলা। কথা হয় তার সাথে। তিনি জানান, একদিন ফেসবুক স্ক্রল করতে করতে প্রিয় শিক্ষালয়ের একটি বিজ্ঞাপন চোখে পড়ে। অনেকটা কৌতুহল নিয়েই ডাউনলোড করি অ্যাপটি । চমৎকার লেগেছে অ্যাপটি, ইতোমধ্যে অফারের আওতায় নাম মাত্র টাকায় নিয়ে নিয়েছি তাদের চার বছরের সাবস্ক্রিপশন প্যাকেজ প্ল্যানও। ভাবছি অফলাইনে কোচিং এর পাশাপাশি প্রতিদিনই এক্সাম দিয়ে নিজেকে যাচাই করে নিবো এর মাধ্যমে।

শেরপুর জেলার শ্রীবরদী উপজেলার প্রত্যন্ত এলাকা হারিয়াকোনা। এই এলাকার বাসিন্দা শিক্ষার্থী ঝুমুর। এই অ্যাপের মাধ্যমেই হয়েছে তার চাকুরী। কথা হয় তার সাথে। তিনি জানান, পড়াশোনা শেষ করে বসে শুধু চাকুরীর পরীক্ষা দিয়েছি। কিন্তু চাকুরী হচ্ছিল না। পরে আমার এক বান্ধবীর কাছ থেকে প্রিয় শিক্ষালয় অ্যাপের নাম শুনি এবং ডাউনলোড করে প্রস্তুতি নেয়া শুরু করি। আলহামদুল্লিাহ অবশেষে আমি সফল হয়েছি। আমার একটি সরকারি প্রতিষ্ঠানে চাকুরী হয়েছে। আমি বলবো, এই অ্যাপের কারণেই আমার চাকুরীর প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে এবং চাকুরী হয়েছে। ধন্যবাদ জানাই কর্তৃপক্ষকে এমন একটি অ্যাপ আমাদের জন্য তৈরী করার জন্য।

প্রতিষ্ঠানটির প্রধান নির্বাহী প্রভাষক মহিউদ্দিন সোহেল বলেন, আমরা প্রতিনিয়তই চেয়েছি পড়াশোনা শেষ করে একটি ছেলে অথবা মেয়ে এমনেতেই কিছুটা অস্থির সময় পার করেন তার উপর যখন তাদের হাজার হাজার টাকা খরচ করে রাজধানীতে গিয়ে অথবা বিভাগীয় শহরে গিয়ে কোচিং করতে হয় তা ওই শিক্ষার্থীর এবং তাদের অভিভাবকের জন্য কস্টকর হয়ে যায়। তাই আমরা বেকারবান্ধব শিক্ষা উদ্যোগ হিসেবে স্বল্পমূল্যে মানসম্মত কন্টেন্টে সেরা চাকরির প্রস্তুতি নিতে এই প্লাটফর্মটি রেডি করার চেস্টা করছি । এটি এতো দ্রুত চাকরি প্রার্থীরা গ্রহন করবে ,ভালবাসায় রাখবে তা অব্যশয় ভাবিনি। আমরা খুব শ্রীঘ্রই আরো আকর্ষনীয় ফিচার যুক্ত করবো ইনশাল্লাহ।

প্রতিষ্ঠানটির কো-ফাউন্ডার তরুণ শিল্প উদ্যোক্তা সাদুজ্জামান সাদী বলেন, অনেক প্রতিষ্ঠানই নিয়ে কাজ করি তবে এই প্রতিষ্ঠানটিতে কাজ করতে পেরে আমার ভাললাগা কাজ করে। আমরা চাকরি প্রার্থীদের উপকার হয় তা সব সময় খেয়াল রাখবো। বেকারবান্ধব হবে আমাদের প্রতিষ্ঠানটি। আরো প্রয়োজনীয় ফিচার আনতে কাজ করবে আমাদের টিম । বিশ্বাস করি অনেক ভাল কিছু হবে আমাদের এ অ্যাপটি।

অ্যাপটি প্লে-স্টোরে পাওয়া যাবে https://play.google.com/store/apps/details?id=com.priyoshikkhaloy.android এই লিংক থেকে । তাছাড়াও প্রতিষ্ঠানটিকে ফেসবুকে পাওয়া যাবে https://www.facebook.com/PriyoShikkhaloy এই লিংক থেকে।

আরো পড়ুন: নেত্রকোনায় গণপুর্ত কর্মকর্তা ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার

নেত্রকোনায় গণপুর্ত কর্মকর্তার ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার

0
নেত্রকোনায় গনপুর্ত কর্মকর্তার ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার

নেত্রকোনা সদর উপজেলায় পুকুর পারের একটি গাছ থেকে মো: দেলোয়ার হোসেন (৪৫) নামে সরকারি কর্মকর্তার ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

আজ বৃহস্পতিবার (১৯ জানুয়ারী) সকালে চল্লিশা ইউনিয়নের বামনমোহা গ্রামের শ্বশুরবাড়ি থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

নিহত দেলোয়ার হোসেন সদর উপজেলার কাইলাটী ইউনিয়নের কাওয়ালিকোনা গ্রামের আব্দুল হামিদের ছেলে। তিনি ঢাকা গণপুর্ত অধিদপ্তরে পিএ পদে চাকুরী করতেন। এর প্রায় দুই মাস পূর্বে নেত্রকোনা গণপুর্ত অফিসে কর্মরত ছিলেন।

নিহতের স্ত্রী কবিতা আক্তার বলেন, বৃহস্পতিবার রাতে বাড়ীতে কখন এসে এই ঘটনা ঘটিয়েছে তা আমি জানিনা। সকালে লোকজন মারফত খবর পেয়ে বাড়ীর পাশে পুকুরপারে গিয়ে তার ঝুলন্ত মরদেহ দেখতে পাই। পরে পুলিশ খবর পেয়ে মরদেহ উদ্ধার করে।

মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আবুল কালাম জানান, মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য জেলা সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরন করা হয়েছে। তদন্তের পর আসল ঘটনা জানা যাবে।

আরো পড়ুন : পূর্বধলায় কুড়িয়ে পাওয়া টাকা ফেরত দিল মালিককে

G-P4YRF2NDHL